মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১, ১২ শ্রাবণ, ১৪২৮, ১৬ জিলহজ, ১৪৪২
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১

“কঠোর লকডাউনে কোন বিধি নিষেধ মানছেন না সাধারন মানুষ”

“কঠোর লকডাউনে কোন বিধি নিষেধ মানছেন না সাধারন মানুষ”

গোপালগঞ্জ : কঠোর লকডাউনের ৬ষ্ঠ দিনে এসে কোন বিধি নিষেধ মানছেন না সাধারন মানুষ। তবে লকডাউন কায্যকর করতে চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে জেলা ও পুলিশ প্রশাসন। গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনা সনাক্তে হার শতকরা ৪৯ ভাগ।

আজ রবিবার (২৭ জুন) সকালে জেলা শহরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে দেখা গেছে, জেলা শহরের পুরাতন বাজার রোড, কাপড় পট্রি, চৌরঙ্গী, লঞ্চঘাটসহ বিভিন্ন স্থানে মানুষের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। অনেকেই অপ্রয়োজনে বাইরে বের হয়েছে। অনেককেই মাস্ক না পরে বাইরে ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে। কাঁচাবাজার বিভিন্ন দোকান ও মার্কেটে গা-ঘেষাঘেষি করে কেনাকাটা করতে দেখা গেছে।

শহরের দোকানপাট বন্ধ রাখার ঘোষনা থাকলেও ব্যবসায়ীরা তা মানছেন না। দোকানে এক দরড়া খোলা রেখে চুপিসারে করছেন বেচাকেনা। তবে প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেলে সাথে সাথে বন্ধ করে দেন আবার চলে যাওয়ার সাথে সাথে খুলে দেন। এ যেন প্রশাসনের সাথে ব্যবসায়ীদের ইঁদুর বিড়াল খেলা চলছে।

ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক ও অভ্যান্তরীন রুটে বাস চলাচল ও গোপালগঞ্জ-রাজশাহী রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে জেলা শহরে অধিক সংখ্যক ইজি বাইক, মাহেদ্র, রিক্সা-ভ্যান চলাচল করতে দেখা গেছে। এসব যানবাহনে অধিক যাত্রী পরিবহন করার পাশাপাশি ভাড়া দ্বিগুন নিচ্ছেন চালকেরা।

লকডাউন কায্যকর করতে জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে চেস্টা করা হচ্ছে। শহরের ঢোকার মুখে কয়েকটি পয়েন্টে ব্যাড়িকেড দেয়া হয়েছে। দোকান বন্ধ রাখতে ও মাস্ক পরিধানে বাধ্য করতে চালানো হচ্ছে ভ্রাম্যমান আদালত। জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ম্যাজিষ্ট্রেটগণ ও উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তারা এসব আদালত পরিচালনা করছেন।

এদিকে, গত ২৪ ঘন্টায় ৮১ নমুনা পরীক্ষায় ৪০ জনের করোনা সনাক্ত হয়েছে। সনাক্তের হার শতকরা ৪৯ শতাংশ। এছাড়া জেলায় মোট ২৫ হাজার ৫১০ জনের নমুনা পরীক্ষায় সনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ৬৬৯ জন। মোট মৃত্যু হয়েছে ৫১ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৮ জন।


error: Content is protected !!