বুধবার, ২০ অক্টোবর, ২০২১, ৪ কার্তিক, ১৪২৮, ১৩ রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩
বুধবার, ২০ অক্টোবর, ২০২১

করোনা রোগীর বাড়ির খাদ্য সামগ্রী নিয়ে গেলেন ইউএনও

করোনা রোগীর বাড়ির খাদ্য সামগ্রী নিয়ে গেলেন ইউএনও

শরীয়তপুর:রীয়তপুর সদর উপজেলার পালং ইউনিয়নের নড়বালাখানা এলাকায় করোনায় আক্রান্ত রোগীর বাড়ি খাবার সহায়তা নিয়ে গেলেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) মনদীপ ঘরাই।

করোনার সচেতনতার্থে বিভিন্ন মোবাইল কোর্ট পরিচালনা শেষে বৃহস্পতিবার ৮ জুলাই রাত সাড়ে ৯টার দিকে ইউএনও করোনা আক্রান্ত রোগীদের খোঁজখবর নেন ও আক্রান্ত রোগীদের বাড়িতে গিয়ে লাল পতাকা টাঙিয়ে দিয়ে যান।

এ সময় জেলা প্রশাসক কার্যালয় ও সদর উপজেলা কার্যালয়ের বিভিন্ন কর্মকর্তা-কর্মচারী, পুলিশ, বিজিবি, আনসারসহ গনমাধ‍্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আক্রান্ত রোগীরা হলেন সৌদি প্রবাসী হুমায়ুন চৌকিদারের স্ত্রী রেহানা বেগম, ছেলে রায়হান চৌকিদার ও মেয়ে রতনা আক্তার।

আক্রান্ত রায়হান চৌকিদার মোবাইল ফোনে জানান, আজ ১১ দিন হলো আমরা করোনায় আক্রান্ত। ১১ দিন শেষে এখন আমরা সবাই প্রায় সুস্থ‍্যের দিকে। ১৪ দিন শেষে  করোনার নমুনা পরীক্ষা নতুন করে দিলে পুরোপুরি সুস্থ‍্য হয়েছি কি-না জানতে পারবো। সদর উপজেলার ইউএনও স্যার আমাদের খোঁজ খবর নিছে এতে আমরা অনেক খুশি। স্যার যে নির্দেশনা দিয়ে গেছে, সেটা আমরা মেনে চলবো।

সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার মনদীপ ঘরাই জানান, সদর উপজেলায় যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছে, সে সব পরিবারের আমরা খোঁজ খবর রাখছি। যাদের বাসায় খাবার নেই। তাদের বাসায় খাবার পৌঁছে দিয়েছি। যে সব বাড়ির লোক করোনায় আক্রান্ত সে বাড়ি গুলোতে লাল পতাকা টানিয়ে চিহ্নিত করে দেয়া হয়েছে। তারা যেন কেউ বাড়ি থেকে বের না হয় আর তাদের সাথে এবং তাদের বাড়িতে এই মুহূর্তে কেউ যেন না যায়।

এছাড়াও রোগীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বিভিন্ন স্বাস্থ‍্য সচেতনতা বিষয়ে নির্দেশ প্রদান করেন। এবং করোনা রোগীর আশেপাশে থাকা সকলকে করোনার বিষয়ে স্বাস্থ‍্য সচেতনতামূলক বক্তব্য প্রদান করেন।


error: Content is protected !!