রাজকোটেও আগ্রাসী ক্রিকেট খেলবে বাংলাদেশ

ঢাকা: দেশের ক্রিকেটের টালমাটাল অবস্থায় ভারত সফরে গিয়ে প্রথম ম্যাচেই জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহর দল এখন সিরিজ জয়ের স্বপ্ন দেখতেই পারে। এমন ম্যাচে অধিনায়ক মনস্তাত্ত্বিকভাবে এগিয়ে রাখছেন বাংলাদেশকেই।

রাজকোটে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) হতে যাওয়া দ্বিতীয় ম্যাচের আগে বাংলাদেশ দলকে পাওয়া গেল বেশ ফুরফুরে মেজাজে। গত কয়েকদিন দেশের ক্রিকেটের উপর চেপে বসা দমবন্ধ পরিস্থিতিও যেন উধাও। ক্রিকেটাররা এক ম্যাচের নৈপুণ্যেই পাচ্ছেন বাড়তি শক্তি, উদ্দীপনা, প্রেরণা।

এই ম্যাচে খারাপ খেললেও সমালোচনার তীর ধেয়ে আসবে না। মন খুলে খেলতে নামতে এই ভাবনাও দিচ্ছে স্বস্তি। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ স্পষ্টই জানালেন, ভারতের মতো শক্তিশালী দলের বিপক্ষে এই অবস্থা থেকে কেবল তাদের পাওয়ারই আছে অনেক, ‘অবশ্যই এটা দুর্দান্ত সুযোগ (সিরিজ জেতার)। যখন আপনি প্রথম ম্যাচে জিতে এগিয়ে থাকবেন, সব সময়ই ভালো সুযোগ। ছেলেরাও উদ্যমী হয়ে আছে ভালো কিছু করতে। আশা করি, কাল ভালো কিছু করে দেখাতে পারব।’

এরপর তিনি যোগ করেছেন,‘শুরু থেকে আমাদের উপর আসলে কোনো চাপ ছিল না। কারণ এখানে আমাদের হারানোর কিছু ছিল না। পাওয়ার ছিল অনেক। কালও তেমন আমাদের পাওয়ার থাকবে অনেক। আমরা আগ্রাসী ও ইতিবাচক ক্রিকেট খেলব।’

এই সময়টার জন্য ভারতকে হারিয়ে সিরিজ জেতার একটা বিশাল গুরুত্ব খুঁজে পাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেটে যা হলো গত কদিনে, সেদিক থেকে এমন একটা সিরিজ জেতা দারুণ প্রেরণাদায়ক হবে বাংলাদেশের ক্রিকেট ও বাংলাদেশ দলের জন্য। ভারতকে হারাতে আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলতে হবে বটে। আমরা জানি, তারা খুব ভালো দল। ঘরের মাঠে এবং সবখানেই।’