এশিয়ান টিভিকে ১২ দিনের আল্টিমেটাম দিলো সাবেক কর্মীরা

ঢাকা: বকেয়া পাওনা আদায়ে এশিয়ান টিভিকে ১২ দিনের সময় বেঁধে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির সাবেক কর্মীরা। আজ বৃহস্পতিবার চ্যানেলটির মানবসম্পদ বিভাগকে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে সব পাওনা বুঝিয়ে দেওয়ার আল্টিমেটাম দিয়েছেন জোটবদ্ধ সাবেক কর্মীদের তিন প্রতিনিধি। প্রতিষ্ঠানটির নিকেতনের অফিসে মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ শেখ কাদেরের সঙ্গে বৈঠক করেন সাবেক চিফ নিউজ এডিটর সেলিম খান এবং সাবেক ভিডিও এডিটর আব্দুল আলীম ও মেহেদী হাসান।

বৈঠক শেষে মেহেদী হাসান জানান, ‘মানবসম্পদ বিভাগের প্রধানের সঙ্গে বকেয়া টাকার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সমস্যা সমাধানে তিনি এক মাস সময় চেয়েছেন। আমাদের মনে হয়েছে এটি আগের মতো সময়ক্ষেপণের কৌশল। তাই আমরা ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত তাদের সময় দিয়েছি।’

বৈঠকে অংশ নেওয়া আব্দুল আলীম বলেন, ‘চ্যানেলটির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে অনেক দেনদরবার করার পরও আমরা ন্যায্য পাওনা বুঝে পাইনি। এই দফায় আরও ১২ দিন সময় দিয়েছি। এরপর আর সময় দেওয়া হবে না। আশা করি এশিয়ান টিভি আমাদেরকে রাজপথে ঠেলে দেবে না।’

আব্দুল আলীম আরও জানান, ‘এশিয়ান টিভির চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ বরাবর সাবেক ৪০ কর্মী সম্প্রতি দুই দফা দরখাস্ত দেন। কিন্তু এতে তিনি কর্ণপাত করেননি। বাধ্য হয়ে প্রতিষ্ঠানটির ভাইস চেয়ারম্যান ও রূপায়ন গ্রুপের চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী খান মুকুল স্যারকে আমি বিষয়টি জানাই।’

আজকের বৈঠকের বিষয়ে চ্যানেলটির মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ শেখ কাদেরের সঙ্গে অনেক চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এশিয়ান টিভির সাবেক ৪০ কর্মী প্রতিষ্ঠানটির কাছে ৪২ লাখ টাকার বেশি পাওনা রয়েছেন বলে জানান তাদের কয়েকজন। ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে বকেয়া পাওনা না পেলে, জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন, এশিয়ান টিভি অফিসের সামনে মানববন্ধন ও লাগাতার অবস্থান, তথ্যমন্ত্রী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। এতেও কাজ না হলে, সাবেক ৪০ কর্মীর সবাই এশিয়ান টিভির বিরুদ্ধে ঢাকার শ্রম আদালতে একযোগে মামলা করবেন