ভেদরগঞ্জের পশ্চিম ছয়গাঁও এলাকার আতঙ্ক ডালিম সরদার

শরীয়তপুর: শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম ছয়গাঁও এলাকায় মাসুদুর রহমান ডালিম সরদারের নাম (ডালিম গ্রুপ) সকল মানুষরে আতঙ্ক বলে অভিযোগ রয়েছে। ডালিম সরদার পশ্চিম ছয়গাঁও এলাকার অজিত সরদারের ছেলে। ডালিম একটি সংঘবদ্ধ চক্রের নেতৃত্ব প্রদান করে বলে জানা গেছে। ডালিম চক্রের দ্বারা স্কুল কলেজে পড়ুয়া মেয়েরা নিয়মিত ইভটিজিং এ শিকার হওয়ার ঘটনা ঘটে। সুযোগবুঝে ছিনতাই করার অভিযোগও রয়েছে এই চক্রটির বিরুদ্ধে। ডালিক চক্রের প্রতিটি সদস্য মাদক সেবনসহ মাদক ব্যবসার সাথেও জড়িত এবং ডালিম সদস্যরা এলাকায় সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালায় বলে জনশ্রুতি রয়েছে। ডালিম চক্রের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক অভিযোগ রয়েছে বলে জানা গেছে।
এলাকাবাসী জানায়, ডালিম এলাকায় সংঘবদ্ধ একটি গ্রæপের নেতৃত্ব দেয়। চক্রটি বেশীরভাগ সময় পশ্চিম ছয়গাঁও এলাকার চাটার বাজারে অবস্থান করে। কারণে অকাণে এলাকাবাসীর সাথে বিবাদে জড়ায়। এই গ্রুপের সদস্যরা স্কুল কলেজগামী মেয়েদের দেখলে বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গীসহ অশোভন আচরণ করে উত্যাক্ত করে। পশ্চিম ছয়গাঁও থেকে সদর উপজেলার আটং গ্রামের মধ্যবর্তী ফাঁকা জায়গায় ছিনতাইয়ের মতো ঘটনা ঘটায় এই চক্রটি। এছাড়াও চাঁদার দাবীতে এলাকায় সাধারণ মানুষের উপর নির্যাতন চালায় তারা। পশ্চিম ছয়গাঁও এলাকর এক ব্যক্তি মন্ত্রনালয়ে চাকুরি কারে আর সেই ব্যক্তির দাপটে ডালিম গ্রুপ সক্রিয় রয়েছে বলেও জানায় এলাকাবাসী।
এলাকাবাসী আরও জানায়, ওই এলাকায় একজন মাদক ব্যবসায়ী দীর্ঘদিন ধরে দাপটের সাথে মাদক ব্যবসা করে যাচ্ছে। সেই মাদক ব্যবসায়ীকে সেলটার দেয় ডালিম গ্রুপ। দালিম গ্রুপ কারনে অকারনে তুচ্ছ ঘটনায় মানুষকে মারধর করে। ইতোমধ্যে ছয়গাঁও বাংলাবাজার এলাকায় বড় ধরনের একটা মারামারির ঘটনা ঘটিয়েছে ডালিম গ্রুপ। এলাকাবাসী ডালিম গ্রুপের কার্যকলাকে অতিষ্ট হয়ে সকর সদস্যকে একবার গণধোলাই দেয়। কিছুদিন আত্মগোপনে থাকার পরে আবার সক্রিয় হয়েছে ডালিম চক্র। রাতের আধারে এই চক্রটি অপরাধে জড়ায় তাই এলাকায় সরকারি উদ্যোগে সৌর বিদ্যুতের সাহায্যে সড়ক বাতি জ্বালানো হয়। সেই সড়ক বাতি নষ্ট করার জন্য বারবার চেষ্টা করেছে ডালিম সদস্যরা।
এ বিষয়ে ভেদরগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম জানায়, ডালিম গ্রুপ এলাকায় অঘটনা ঘটায় বলে থানায় লিখিত অভিযোগ রয়েছে।