মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১, ১২ শ্রাবণ, ১৪২৮, ১৬ জিলহজ, ১৪৪২
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১

সবাইকে কাঁদিয়ে চলে গেলেন,শাহান আরা আবদুল্লাহ।

সবাইকে কাঁদিয়ে চলে গেলেন,শাহান আরা আবদুল্লাহ।

বরিশাল: সকলকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন পার্বত্য শান্তিচুক্তি বাস্তবায়ন পরিবীক্ষন কমিটির আহ্বায়ক (মন্ত্রী পদমর্যাদা), বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সদস্য ও বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ-এমপি’র সহধর্মীনি ও বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র মাতা, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতের প্রত্যক্ষ সাক্ষী শাহান আরা আবদুল্লাহ।

গতকাল রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজেউন)। এর আগে গত শুক্রবার শারীরিক অসুস্থতার কারণে তাকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মৃত্যুকালে তিনি স্বামী, তিন পুত্র সন্তান ও এক কন্যা সন্তানসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

রাতে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস। তিনি জানিয়েছেন, যতটুকু জেনেছি তিনি হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।আজ সোমবার তাকে বরিশালে নিয়ে আসা হবে এবং বরিশালেই তার দাফন করা হবে।

এদিকে শাহান আরা বেগম এর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে আসে। বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের নেতৃবৃন্দসহ শত শত মানুষ লকডাউন উপেক্ষা করে রাতেই ছুটে যান গৌরনদীর সেরালস্থ আবুল হাসনাত আবদুল্লাহর পৈতৃক বাড়িতে এবং বরিশাল নগরীর কালিবাড়ী রোডস্থ মেয়র সেরনিয়বাত সাদিক আবদুল্লাহর বাসভবনে।

১৯৭৫ এর ১৫ই আগস্ট কালরাতে নিরব সাক্ষী শাহান আরা আবদুল্লাহ। সেদিন ঘাতকের বুলেটে ক্ষত বিক্ষত হওয়া শাহান আরা বেগম অলৌকিকভাবে আল্লাহ’র অশেষ রহমতে বেঁচে যান। তবে তার শিশুপুত্র সুকান্ত বাবু আব্দুল্লাহ ঘাতকের বুলেটে প্রান হারান।

বরিশাল রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনেও জনপ্রিয় শাহান আরা আবদুল্লাহ বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা এবং বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি। এছাড়া বরিশাল শব্দবলি গ্রুপ থিয়েটারের চেয়ারম্যান ছিলেন তিনি।

তাছাড়া ছাত্র জীবন থেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন শাহান আরা আবদুল্লাহ। তিনি ছিলেন বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি। এছাড়াও বর্তমানে বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন শাহান আরা আবদুল্লাহ।

তার এই আকস্মিক মৃত্যুতে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. ছাদেকুল আরেফিন,বরিশালের জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান ও বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তারা মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।


error: Content is protected !!