গোসাইরহাটে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ জোরপূর্বক জমি দখলের পায়তারা ও প্রাণ নাশের হুমকির অভিযোগ

শরীয়তপুর: শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে অসহায় একটি পরিবারকে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। বহিরাগত সন্ত্রাসীদের নিয়ে জমি ও পুুকুর দখলের পায়তারার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ভূক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা। প্রতিপক্ষের অব্যাহত হুমকি ধমকিতে অসহায় হয়ে পড়েছে পরিবারটি। ভূক্তভোগী পরিবারের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিবাদমান জমিতে স্থিতি অবস্থা বজায় রাখতে স্থানীয় থানা পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এরপরেও রাতের আধারে সন্ত্রাসী নিয়ে জমি দখরের পায়তারা করছে দাদন মিয়া গংরা।
স্থানীয় এলাকাবাসী ও ভূক্তভোগী পরিবার সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন যাবত পৈতৃক ও ক্রয়কৃত সম্পতি নিয়ে গোসাইরহাট উপজেলার মৃত আবূ কাশেম ঢালীর পুত্র প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মো: ইদ্রিস আলী ঢালীর সঙ্গে তার ভাতিজা মৃত বিল্লাল হোসেন ঢালীর ছেলে দাদন মিয়া ঢালী গংদের সাথে বিরোধ চলে আসছে। এ সংক্রান্ত উভয় পক্ষের আদলতে একাধিক মামলাও চলমান রয়েছে। কিন্তু মামলা চলমান অবস্থায় দাদন মিয়া গংরা বহিরাগত সন্ত্রাসী নিয়ে রাতের আধারে ইদ্রিস আলী ঢালীর ভোগদখলী জমি, পুকুর দখলের পায় তারা করছে অভিযোগ করেছেন তার স্ত্রী রহিমা বেগম। প্রতিনিয়ত দাদন ঢালী তাদের হত্যার হুমকি দিচ্ছে এবং তার ছেলেকে হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলবে বলে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করছেন অভিযোগ রহিমা বেগমের।
ভূক্তভোগী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মো: ইদ্রিস আলী ঢালী বলেন, আমার পৈতৃক ও ক্রয়কৃত জমি আমি দীর্ঘদিন যাবত ভোগ দখল করে আসছি। কিন্তু দাদন মিয়া গংরা অযথা আমার সম্পত্তি দখলের পায়তারা করছে। রাতের আধারে সন্ত্রাসী ভাড়া করে আমার সম্পত্তি দখলের পায়তারা করছে। প্রতিনিয়ত আমরা হুমকি ধমকির মধ্যে রয়েছি। প্রাণের ভয়ে আমরা শংকিত।
ভূক্তভোগী মো: ইদ্রিস আলী ঢালীর স্ত্রী রহিমা বেগম বলেন, আমরা ভয়ে ঘরের মধ্যে বন্দি হয়ে রয়েছি। আমাদের বাড়ি থেকে বেড় হওয়ার রাস্তাটাও বন্ধ করে দিয়েছে। আমার ছেলেকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। আমার শক্তি নাই, টাকাও নাই। সন্ত্রাসী নিয়ে রাতের আধারে আমাদের হত্যা করে বাড়ি ঘর দখলের হুমকি ধমকি দিচ্ছে ওরা। আমার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাহয্য কামনা করছি।

অভিযুক্ত দাদন মিয়া বলেন, আমাদের জমি সে দীর্ঘদিন যাবত দখল করে রেখেছে। শালিশ মিমাংশা কিছুই মানে না। আমাদের বিরুদ্ধে নানা জায়গায় মিথ্যা অভিযোগ দিচ্ছে। আমি কেন তাকে হত্যার হুমকি দেব?
গোসাইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্যা সোয়েব আলী বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়টি আদালতের মাধ্যমে সমাধান করতে হবে। যদি কেউ হুমকি ধমকি দেয় তাহলে আমাদের কাছে অভিযোগ দিলে অবশ্যই তাকে আইনগত সহায়তা দেয়া হবে।