মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২০, ১১ কার্তিক, ১৪২৭, ৯ রবিউল আউয়াল, ১৪৪২
মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২০

বরগুনার বহুল আলোচিত রিফাত হত্যা মামলার রায় আগামীকাল

ফাইল ছবি
বরগুনা : বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার রায় হবে আগামীকাল (৩০ সেপ্টেম্বর)। সকল জায়গাতে রয়েছে প্রশাসন সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন এমনকি বরগুনা শহরের আজ থেকে সব জায়গাতে চলছে পুলিশের টহল। কঠোর নিরাপত্তা জোরদার করেছেন বরগুনা প্রশাসন।
এদিকে বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ মো. আছাদুজ্জামান মামলার রায় ঘোষণা করবেন। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন রিফাতের পরিবার ও স্থানীয়রা। এদিকে ন্যায্য বিচার প্রত্যাশা করেছেন মিন্নির বাবা।
বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) এ মামলার বয়স্ক ১০ জন আসামির বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা করা হবে। মামলার আসামিরা হচ্ছেন- রাকিবুল হাসান ওরফে রিফাত ফরাজী (২৩), আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন (২১), মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত (১৯), রেজোয়ান আলী খান হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয় (২২), মো. হাসান (১৯), মো. মুসা (২২), আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি (১৯), রাফিউল ইসলাম রাব্বি (২০), মো. সাগর (১৯) ও কামরুল হাসান সায়মুন (২১)।
গত বছরের ১ সেপ্টেম্বর রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় রিফাতের স্ত্রী মিন্নিসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দুই ভাগে বিভক্ত অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দেয় পুলিশ। চলতি বছরের ১ জানুয়ারি রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালত। এরপর ৭৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ, রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায়ের তারিখ নির্ধারিত হয়। করোনা মহামারির মধ্যে আদালত বন্ধ থাকার পরেও অতি অল্প সময়ে বিচারিক কার্যক্রম শেষ করে রায়ের দিন নির্ধারিত হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি করেছেন রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ।
আইনের প্রতি শতভাগ আস্থা জানিয়ে রিফাত শরীফ হত্যা মামলার সাক্ষী থেকে আসামি হওয়া আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরও ন্যায্য বিচার প্রত্যাশা করছেন। তার দাবি মিন্নিকে এই মামলায় ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ফাঁসানো হয়েছে।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট ভুবন চন্দ্র হাওলাদার জানিয়েছেন, তারা রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষী, নানা তথ্য ও উপাত্ত দিয়ে আদালতকে সন্তুষ্ট করতে পেরেছেন। তার প্রত্যাশা আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে।
মিন্নির পক্ষের আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম জানিয়েছেন, তারা যে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেছেন-তাতে মিন্নি বেকসুর খালাস পাবেন।
বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় ১০ আসামির রায়ের দিন নির্ধারিত হলেও ১৪ শিশু আসামির বিচারিক কার্যক্রম বরগুনার শিশু আদালতে চলমান রয়েছে।
শাহ নেওয়াজ রিফাতকে (রিফাত শরীফ) ২০১৯ সালের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে নয়ন বন্ড ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। এরপর বীরদর্পে অস্ত্র উঁচিয়ে এলাকা ত্যাগ করেন তারা। গুরুতর আহত রিফাত বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওইদিনই মারা যান।