বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, ৯ রবিউস সানি, ১৪৪২
বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০

নারী নিপীড়ন বন্ধের দাবিতে যশোরে প্রতিবাদ বিক্ষোভ অব্যাহত

নারী নিপীড়ন বন্ধের দাবিতে যশোরে প্রতিবাদ বিক্ষোভ অব্যাহত

যশোর : সারাদেশে নারী ধর্ষণ, নিপীড়ন, সহিংসতা বন্ধ, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে নির্যাতনসহ ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে যশোর শহরে বিক্ষোভ করেছে বিভিন্ন সংগঠন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত প্রেসক্লাব যশোরের সামনে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের ব্যানারে ও যৌন নিপীড়ন বিরোধী শিক্ষার্থী জোট যশোরের ব্যানারে পৃথকভাবে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। সকালে শহরের জিরো পয়েন্ট দড়াটানায় গোল হয়ে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করেন। এসময় ধর্ষণকারীদের ফাঁসির দাবিতে স্লোগানে স্লোগানে মুখর হয়ে উঠে সমগ্র দড়াটানা। এর আগেই সকাল থেকে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ব্যানার, ফেস্টুন-প্লকার্ড হাতে দড়াটানায় জড়ো হন। তাদের দাবি সারাদেশের ধর্ষণকারীদেরকে আইনের আওতায় এনে ফাঁসি দিতে হবে। যাতে দেশে আর কেউ ধর্ষণের সাহস না দেখায়। শিক্ষার্থীরা যেসব ফেস্টুন বহন করেছিলেন তাতে লেখা ছিল, ‘কাপুরুষ বদলে যাও, ধর্ষক নয়-পুরুষ হও’, ‘থু ধর্ষক থু, ‘এক দুই তিন চার-ধর্ষক তুই দেশ ছাড়, ‘তোমার- আমার বাংলায়-ধর্ষকদের ঠাঁই নাই’ প্রভৃতি। প্রায় এক ঘণ্টা অবস্থান শেষে স্লোগানে দিতে দিতে দড়াটানায় থেকে শহরের বিভিন্ন সড়কে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। সকাল ১০ টায় জেলা আইনজীবী সমিতি সামনে সারাদেশে লাগাতার ধর্ষণের দ্রুত বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করে গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতির যশোর জেলার নেতৃবৃন্দ। মানববন্ধনে আইনজীবীরা বলেন, ধর্ষণ মামলার কোনো আসাসির পক্ষে দাঁড়াবেন না গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতির কোনো সদস্য। ধর্ষণের শিকার যারা হয় সঠিক সময়ে তাদের থানায় মামলা নেয়া হয় না। বিচার ব্যবস্থার দীর্ঘায়িত হওয়া কারণে দিন দিন ধর্ষণের পরিমাণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। ধর্ষণ হতে সমাজকে পরিত্রাণ দিতে হলে ধর্ষকের অতিদ্রুত বিচার ও সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল হোসেনের নেতৃত্বে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে অর্ধশতাধিক আইনজীবী অংশগ্রহণ করেন।

বেলা ১১ টায় প্রেসক্লাব যশোরের সামনে নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা ও পৌর কাউন্সিলর রোকেয়া পারভীন ডলি, ছাত্রলীগের সাবেক নেত্রী জাহান আরা মিলি, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদিকা মাজেদা বেগম, সদস্য বানু ইসলাম, সদর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারা বেগম আনু, সদস্য আনোয়ারা বেগম, শহর মহিলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সাদিয়া রহমান, সাধারণ সম্পাদিকা রেহেনা পারভীন, সাংগঠনিক সম্পাদক রেহেনা আক্তার রুবি প্রমুখ।

এর পর একই স্থানে জেলা যুব মহিলা লীগের উদ্যোগে সারাদেশে ধর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন হয়েছে। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন জেলা যুব মহিলা লীগের সহ-সভাপতি পৌর কাউন্সিলর নাসিমা আক্তার জলি, সদর উপজেলা যুব মহিলা লীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক শেখ সাদিয়া মৌরিন, উপশহর ইউনিয়ন যুব মহিলা মহিলা লীগের সভাপতি শাহনাজ পারভীন, নওয়াপাড়া ইউনিয়ন সভাপতি মিতা বেগম, পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি জুলেখা বেগম, ৪ নম্বর ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক বুলবুলি বেগম, ৬ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি জোৎস্না মোস্তারী প্রমুখ।

বেলা ১২ টায় প্রেসক্লাব যশোরের সামনে যৌন নিপীড়ন বিরোধী শিক্ষার্থী জোট যশোরের ব্যানারে মানববন্ধন হয়েছে। মানববন্ধনে সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ জেলার বিভিন্ন স্ংস্কৃতিক কর্মীও অংশ নেয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের যশোর জেলা শাখার আহ্বায়ক খন্দকার তন্ময় রহমান, সাংস্কৃতিক কর্মী রুবেল, রাফি প্রমুখ। একই সময়ে নিপীড়ন বিরোধী মঞ্চ যশোর শাখার নেতৃবৃন্দ একই দাবিতে মানববন্ধন করেন।

এদিকে সকাল ১০ টায় প্রেসক্লাব যশোরের সামনে একই দাবিতে মানববন্ধন করে ছাত্রছাত্রীদের টিফিনের টাকায় পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ঐক্য-বন্ধন যশোর। মনিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমা খানমের ছেলে আসিফ খান অভি’র নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে অন‍্যান‍্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাহমুদ হাসান সোহাগ, সদর উপজেলা শাখার সভাপতি হুসেইন, সহ-সভাপতি রনি রহমান, প্রকাশনা সম্পাদক রাফিদ আল মামুন, শিশু সম্পাদক মাহফুজুর রহমান প্রমুখ ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ধর্ষকদের সাজা মৃত্যুদণ্ড করার পাশাপাশি দ্রুত বিচার ট্র্যাইব্যুনাল গঠন, ধর্ষকদের আশ্রয়দাতা- গডফাদারদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান। একই সাথে পরিবার থেকে এই ধর্ষণরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার পাশাপাশি নারীদের লেখাপড়ার পাশাপাশি রাষ্ট্রিয় খরচে সকল সকল নারী-শিশুদের আত্মরক্ষার কৌশল প্রশিক্ষণ দেয়ার দাবি জানান।

অপরদিকে নারী নির্যাতনের ঘটনাসহ সকল ধর্ষণ-নিপীড়নের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মণিরামপুরে পরিবেশবাদী ছাত্রযুব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘গ্রীন ভয়েস’ মণিরামপুর উপজেলা শাখার উদ্যোগে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহষ্পতিবার সকালে যশোর-সাতক্ষীরা মহাসড়কের মণিরামপুর পৌর ভবনের সামনে এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের উপজেলা প্রধান সমন্বয়ক শরিফুল ইনসামের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চন্ডিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও মণিরামপুর পাবলিক লাইব্রেরির নির্বাহী পর্ষদের সদস্য টিএম সায়ফুল আলম। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন মণিরামপুর সরকারি কলেজের প্রভাষক মোস্তাফিজুর রহমান, উত্তর বাহাদুরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মজিদ, ব্যবসায়ী মোশাররফ হোসেন, সহকারী শিক্ষক আকরাম হোসেন, বিউটি আক্তারসহ গ্রীন ভয়েস মণিরামপুর উপজেলা শাখার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

এ সময় বক্তারা বলেন, নারী নির্যাতনকারী ও ধর্ষকরা মানুষ নামের কলংক, এদের কোন সমাজ নেই, কোনো দল নেই। সে যত বড় ক্ষমতাশালী হোক না কেন তাকে দ্রুততার সাথে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।