বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, ১৬ রবিউস সানি, ১৪৪২
বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২০

এএসপি আনিসুল করিম’র গাজীপুরের বাড়িতে স্বজনদের আহাজারি পুলিশ কর্মকর্তাদের সমবেদনা, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি

এএসপি আনিসুল করিম’র গাজীপুরের বাড়িতে স্বজনদের আহাজারি পুলিশ কর্মকর্তাদের সমবেদনা, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি

গাজীপুর: প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে পুলিশের সিনিয়র এএসপি আনিসুল করিম শিপনের মৃত্যুটি স্বাভাবিক নয়, এটি প্রকৃতই একটি হত্যাকান্ড। কারণ এ হাসপাতালটিতে স¦াস্থ্য বিভাগ, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরসহ হাসপাতাল চালানোর মতো কোন বৈধ কাগজপত্র নেই, প্রশিক্ষিত জনবল নেই। এ হাসপাতালে শুধু ওয়ার্ড বয় নয়, চিকিৎসা কাজেও যারা জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ঘটনায় হত্যা মামলাও রজু হয়েছে।

বুধবার দুপুরে গাজীপুরে আনিসুল করিম শিপনের বাসায় তার বাবা,ভাই, বোন ও স্বজনদের সমবেদনা জানাতে গিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তেজগাঁও জোনে কর্মরত ডিসি ও গাজীপুরের সাবেক এসপি মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ ওই কথা জানিয়েছেন। এসময় তার সঙ্গে ঢাকা থেকে আগত এএসপি আনিসুল করিম শিপনের প্রায় ২০জন বেসমেট ছিলেন। পরে তারা এএসপি আনিসুলের কবর জেয়ারত করেন। তারাও এ ব্যাপারে সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করেছেন। অনুমোদনহীন হাসপাতালটির বিরুদ্ধে সব ধরনের অনুসন্ধান করছে পুলিশ। ওই ঘটনায় জড়িত কেউ ছাড় পাবে না। যারাই নামকে ওয়াস্তে এ হাসপাতাল করে মানুষকে হয়রানি করছে এবং এর সঙ্গে কোন প্রতিষ্ঠানের চিকিৎসক ও কর্মকর্তা জড়িত আছে কি-না তা তদন্ত করে প্রত্যেককে আইনের আওতায় আনা হবে।

ডিসি হারুন জানান, ওই হত্যাকান্ডের ঘটনায় হাসপাতালের পরিচালকসহ ১১জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার মধ্যে ১০জনকে রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। হাসপাতালের পরিচালক অসুস্থ থাকায় এখন তার চিকিৎসা চলছে। সুস্থ্য হলে তাকেও রিমান্ড নেয়া হবে।

বিচার দাবিতে বিক্ষোভ, মানবন্ধন গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার আড়াল এলাকার কৃতি সন্তান ও পুলিশের সিনিয়র এএসপি আনিসুল করিম শিপনের হত্যকারীদের বিচার দাবিতে কালো ব্যাচ ধারণ, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছে।

বুধবার সকাল ১১টার দিকে শহরের ভাওয়াল রাজবাড়ি সড়কে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে এসব কর্মসূচি পালন করা হয়। নিহত শিপনের সহপাঠি জাহাঙ্গীর নগর বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ স্থানীয় স্কুল ও কলেজের সহপাঠি এবং এলাকাবাসির উদ্যোগে আয়োজিত এসব কর্মসূচিতে কাপাসিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আমানত হোসেন খান, কাউন্সিলর হাসান আজমল ভূইয়া, আয়েশা বেগমসহ আওয়ামীলীগবিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশ নেন।

এসময় বক্তারা অবিলম্বে শিপন হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।