মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১, ১২ শ্রাবণ, ১৪২৮, ১৬ জিলহজ, ১৪৪২
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১

চার ম্যাচ নিষিদ্ধ সাকিব

চার ম্যাচ নিষিদ্ধ সাকিব

ঢাকা: ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) স্টাম্পে লাথি মেরে উড়িয়ে দেয়া ও অশোভন আচরণের অভিযোগে চার ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন সাকিব আল হাসান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মোহামেডানের ক্রিকেট কমিটির প্রধান মাসুদুজ্জামান।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে মোহামেডান ও আবাহনীর মধ্যে উত্তেজনাপূর্ণ একটি খেলায় আম্পায়ার এলবিডব্লিউ’র আবেদন মেনে আউট না দেয়ায় লাথি মেরে স্টাম্প উড়িয়েছেন মোহামেডানের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। এরপর আম্পায়ার ইমরান পারভেজের দিকে তেড়ে যান এবং বিতণ্ডায় জড়াতেও দেখা গেছে তাকে।

অবশেষে ২৪ ঘণ্টা পার না হতেই প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ নিয়ন্ত্রক কমিটি সিসিডিএমের (ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিশ) পক্ষ থেকে চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞার শাস্তি আরোপ করা হলো বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারের ওপর।

মিরপুরে আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচে শুক্রবার (১১ জুন) আবাহনীর ব্যাটিংয়ের পঞ্চম ওভারে বল হাতে তুলে নেন সাকিব আল হাসান। ওভারের পঞ্চম বলটিই আঘাত হানে আবাহনী অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের প্যাডে। আম্পায়ার আউট না দেওয়ায় প্রতিক্রিয়া দেখাতে গিয়ে লাথি মেরে স্টাম্প উড়িয়ে ফেলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। এছাড়া আম্পায়ারের সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়ান। এমনকি মাঠে স্টাম্প তুলে আছাড় মারেন। তবে ম্যাচ শেষ হতেই নিজের ভুল বুঝতে পেরে অনুতপ্ত হয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি।

ফেসবুকে সাকিব লিখেন, ‘প্রিয় ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা, যারাই আজকের ম্যাচে আমার আচরণ দেখে কষ্ট পেয়েছেন বিশেষ করে ঘরে বসে যারা খেলা দেখেছেন, তাদের কাছে আমি দুঃখ প্রকাশ করছি এবং ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমার মতো অভিজ্ঞ একজন ক্রিকেটারের কাছ থেকে এমনটা মোটেও কাম্য নয়, কিন্তু মাঝে মাঝে প্রতিকুল পরিবেশে এমনটা হতেই পারে। এমন ভুলের জন্য সকল দল, কর্তৃপক্ষ, টুর্নামেন্ট সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তা ও আয়োজক কমিটির কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। আশা করি ভবিষ্যতে এমন কোনো কাজে আমি আর জড়াব না। সকলের জন্য ভালোবাসা।’

এর আগেও ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাকিবের একাধিকবার শৃঙ্খলাভঙ্গের ঘটনা আছে। সেগুলোর জন্য তিনি বিভিন্ন সময় শাস্তিও পেয়েছেন।


error: Content is protected !!